পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२br রবীন্দ্র-রচনাবলী কেঁদে বলি, হে মোর সুন্দর, আজ তুমি হও দণ্ডধর, করহ বিচার। তার পরে দেখি, এ কী, খোলা তব বিচারঘরের দ্বার, নিত্য চলে তোমার বিচার । নীরবে প্রভাত-আলো পড়ে তাদের কলুষরক্ত নয়নের ’পরে ; ভ্র বনমল্লিকার বাস স্পর্শ করে লালসার উদ্দীপ্ত নিশ্বাস ; সন্ধ্যতাপসীর হাতে জাল৷ সপ্তর্ষির পূজাদীপমালা তাদের মত্ততাপানে সারারাত্রি চায়— হে সুন্দর, তব গায় ধুলা দিয়ে যারা চলে যায়। হে সুন্দর, তোমার বিচারঘর পুষ্পবনে, পুণ্যসমীরণে, তৃণপুঞ্জে পতঙ্গগুঞ্জনে, বসন্তের বিহঙ্গকুজনে, তরঙ্গচুম্বিত তীরে মর্মরিত পল্লববীজনে। প্রেমিক আমার, তারা যে নির্দয় ঘোর, তাদের যে আবেগ দুর্বার। লুকায়ে ফেরে যে তারা করিতে হরণ তব আভরণ, সাজাবারে আপনার নগ্ন বাসনারে ।