পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৬১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


( 8 o রবীন্দ্র-রচনাবলী এ স্থলে পহু অর্থে পুনঃ এবং অন্যত্র অধিকাংশ স্থলেই পহু অর্থে প্রভু। কিন্তু গোবিন্দদাসের অনেক স্থলে পহু-র ‘ভণে অর্থব্যবহার দেখা যায়। গোবিন্দদাস পহু দীপ সায়াহ, বেলি অবসান ভৈ গেলি । অর্থাৎ গোবিন্দদাস কহিতেছেন বেলা অবসান হইয়াছে, সন্ধ্যাদীপের সময় হইল। ইহা ছাড়া এ স্থলে আর-কোনোরূপ অর্থ কল্পনা করা যায় না। আরও এমন অনেক দৃষ্টাস্ত দেওয়া যাইতে পারে। এক্ষণে কথা এই, কোন ধাতু অনুসারে পহু-র ভণে অর্থ স্থির হইতে পারে। এক, ভণন্থ ১ হইতে ভস্থ এবং ক্রমে পন্থ হওয়া নিতান্ত অসম্ভব নহে— কিন্তু ইহা একটা কাল্পনিক অকুমানমাত্র । বিশেষত, যখন গোবিন্দদাস ব্যতীত অন্ত কোনো প্রাচীন পদকর্তার পদে পহু-র এরূপ অর্থ দেখা যায় না তখন উক্ত অনুমানের সংগত ভিত্তি নাই বলিতে হইবে । আমার বিবেচনায় পূর্বোক্তরূপ ভণিতা পহু অর্থে পুনঃ-ই ধরিয়া লইতে হইবে, এবং স্থির করিতে হইবে এরূপ ক্রিয়াহীন অসম্পূর্ণ পদ্ধবিন্যাস গোবিন্দদাসের একটি বিশেষত্ব ছিল। গোবিন্দদাস পহু, অর্থাৎ ‘গোবিন্দদাস পুনশ্চ বলিতেছেন, এইরূপ অর্থ করিতে হইবে । গোবিন্দদাসের স্থানে স্থানে পহু শব্দের পরে ক্রিয়ার যোগও দেখা যায় । যথা : গোবিন্দদাস পহু এই রস গায়। অর্থাৎ গোবিন্দদাস পুনশ্চ এই রস গান করেন । পাঠকেরা আপত্তি করিতে পারেন এরূপ স্থলে পুনঃ অর্থের বিশেষ সার্থকতা দেখা যায় না। কিন্তু প্রাচীন কবিদের পদে একপ্রকার অনির্দিষ্ট অর্থে পুনঃ শব্দের ব্যবহার দেখা যায় । যথা : তুহরি চরিত নাহি জানি, বিদ্যাপতি পুন শিরে কর হানি । রাধামোহন পুন তঁহি ভেল বঞ্চিত । গোবিন্দদাস কহই পুন এতিখনে জানিয়ে কী ভেল গোরি। যাহা হউক, গোবিন্দদাস কখনো বা ক্রিয়াপদের সহিত যোগ করিয়া কখনো বা ক্রিয়াপদকে উহ্য রাখিয়া পহু শব্দ ব্যবহার করিয়াছেন, কিন্তু সেই সেই স্থলে পহু অর্থে পুনঃ-ই বুঝিতে হইবে। অন্ত কোনোরূপ আনুমানিক অমূলক অর্থ কল্পনা করিয়া লওয়া সংগত হয় না । এই স্থলে প্রসঙ্গক্রমে বলিতেছি, আমার কোনো শ্রদ্ধেয় পূর্ববঙ্গবাসী বন্ধুর নিকট

  • ১ ভণন্থ বিদ্যাপতি, শুন বর বর্তী ।