পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৬১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 রবীন্দ্র-রচনাবলী ミ> ওরে তোদের ত্বর সহে না আর ? এখনো শীত হয় নি অবসান । পথের ধারে আভাস পেয়ে কণর সবাই মিলে গেয়ে উঠিস গান ? ওরে পাগল চাপা, ওরে উন্মত্ত বকুল, কার তরে সব ছুটে এলি কৌতুকে আকুল । মরণপথে তোরা প্রথম দল, ভাবলি নে তো সময় অসময় । শাখায় শাখায় তোদের কোলাহল গন্ধে রঙে ছড়ায় বনময় । সবার অাগে উচ্চে হেসে ঠেলাঠেলি করে উঠলি ফুটে, রাশি রাশি পড়লি ঝরে ঝরে । বসন্ত সে আসবে যে ফাস্তুনে দখিন হাওয়ার জোয়ার-জলে ভাসি’ তাহার লাগি রইলি নে দিন গুণে আগে-ভাগেই বাজিয়ে দিলি বাশি । রাত না হতে পথের শেষে পৌছবি কোন মতে । যা ছিল তোর কেঁদে হেসে ছড়িয়ে দিলি পথে ! ওরে খ্যাপা, ওরে হিসাব-ভোলা, দূর হতে তার পায়ের শবো মেতে সেই অতিথির ঢাকতে পথের ধুলা তোরা আপন মরণ দিলি পেতে । না দেখে না শুনেই তোদের পড়ল বাধন খসে, চোখের দেখার অপেক্ষাতে রইলি নে আর বসে । ৮ মাঘ ১৩২১ কলিকাতা