পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৬১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় (?ぬS) ৩৪ খোলা জানালায় প্রবাসী, ১৩২১ চৈত্র ৩৫ ‘মানসী’ মানসী, ১৩২২ মাঘ ৩৬ বলাকা সবুজ পত্র, ১৩২২ কার্তিক ৩৭ ঝড়ের খেয়া প্রবাসী, ১৩২২ পৌষ ৩৮ নূতন বসন সবুজ পত্র, ১৩২২ অগ্রহায়ণ ৩৯ শেকসপিয়র সবুজ পত্র, ১৩২২ পৌষ 8 ০ চেয়ে দেখা সবুজ পত্র, ১৩২২ ফাল্গুন ৪১ ( যে কথা বলিতে চাই ) সবুজ পত্র, ১৩২২ চৈত্র ৪২ অপমানিত মানসী, ১৩২৩ বৈশাখ ৪৩ পথের প্রেম ভারতী, ১৩২৩ বৈশাখ ৪৪ যৌবন প্রবাসী, ১৩২৩ বৈশাখ ৪৫ নববর্ষের আশীৰ্বাদ সবুজ পত্র, ১৩২৩ বৈশাখ ৩৯ সংখ্যক কবিতাটি শেক্সপিয়রের মৃত্যুর তিনশততম স্মৃতিবার্ষিক উপলক্ষে রচিত হয়, এবং নিম্নমুদ্রিত কবিকৃত ইংরেজি অনুবাদস্থদ্ধ A Book of Homage to Shakespeare, 1916 গ্রন্থে (পৃ ৩২০-২১ ) প্রকাশিত হয়। কবির ইংরেজি কোনো কবিতাগ্রন্থে ইহ সংকলিত হয় নাই । When by the far-away sea your fiery disk appeared from behind the unseen, O poet, O sun, England's horizon felt you near her breast and took you to be her own She kissed your forehead, caught you in the arms of her forest branches, hid you behind her mist mantle and watched you in the green sward where fairies love to play among meadow flowers. A few early birds sang your hymn of praise while the rest of the woodland choir were asleep. Then at the silent beckoning of the Eternal you rose higher and higher till you reached the mid-sky, making all quarters of heaven your own. Therefore at this moment, after the end of centuries the palm groves by the Indian sea raise their tremulous branches to the sky murmuring your praise. বগাকার ৪ ও ৭ সংখ্যক কবিতা দুইটির নিম্নোদ্ধৃত ব্যাখ্যা রবীন্দ্রনাথ চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়কে লিখিয়া পাঠাইয়াছিলেন : ৪— বলাকার শঙ্খ বিধাতার আহবানশঙ্খ, এতেই যুদ্ধের নিমন্ত্রণ ঘোষণা করতে হয়— অকল্যাণের সঙ্গে পাপের সঙ্গে অন্যায়ের সঙ্গে। উদাসীন ভাবে এ শঙ্খকে মাটিতে পড়ে থাকতে দিতে নেই। সময় এলেই দুঃখস্বীকারের হুকুম বহন করতে হবে, প্রচার করতে হবে।