পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৬৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় ৬৩১ “বাংলা বহুবচন’ এবং ‘বাংলা কৃৎ ও তদ্ধিত প্রবন্ধ দুইটির সাময়িক পত্রে প্রকাশিত পূর্ণতর পাঠ বর্তমান সংস্করণে মুদ্রিত হইল। এই সূত্রে পরিষৎ-পত্রিকায় মুদ্রিত শেষোক্ত প্রবন্ধের সম্পাদক রামেন্দ্রসুন্দর ত্রিবেদী -কৃত ভ্রমসংশোধনটুকু উদ্ধারযোগ্য : ‘বাংলা কৃৎ ও তদ্ধিত প্রবন্ধে দুই-একটি সংস্কৃত প্রত্যয়যুক্ত সংস্কৃতশব্দ উদাহরণ মধ্যে স্থান পটুয়াছে ; যথা— ছাগল’, বাচাল। প্রত্যেক শব্দ ধরিয়া বিচার করিলে ওইরূপ উদাহরণ আরও মিলিতে পারে। তাহাতে মূল প্রবন্ধের অঙ্গহানি হইবে না। ১৩০৮ সালে বাংলাব্যাকরণ সম্পর্কিত যে ‘আন্দোলনে’র স্বত্রপাত হয়। হরপ্রসাদ শাস্ত্রী ও রবীন্দ্রনাথ তাহার অগ্রণীস্বরূপ । ‘ধ্বন্যাত্মক শব্দ’ প্রবন্ধে রবীন্দ্রনাথ পাঠকদের “খাটি বাংলাশব্দের শ্রেণীবদ্ধ তালিকা সংকলনে”র যে-আহবান করিয়াছিলেন তাহ। অতি “শীঘ্র সার্থকতা লাভ করে” ও “রবিবাবুর লিখিত ও পরিষৎ ] পত্রিকায় প্রকাশিত প্রবন্ধগুলিতে চলিত বাংলাশব্দগুলির সংগ্রহ ও আলোচনা” হয় । “এই শ্রেণীর শব্দের একটি তালিক যাহা বিদ্যাসাগর মহাশয় সংগ্ৰহ করিয়াছিলেন, তাহা পত্রিকায় বাহির” হয় । “পত্রিকাসম্পাদকও এই শ্রেণীর শব্দসংগ্রহের জন্য পাঠকবর্গকে আহবান” করেন ॥৭ সাহিত্য-পরিষদের তৃতীয় মাসিক অধিবেশনে ( ১১ শ্রাবণ ১৩০৮) “হরপ্রসাদ শাস্ত্রী মহোদয় বৈজ্ঞানিক প্রণালীর অমুগত বাংলাব্যাকরণ প্রণয়নের আবশ্যকতা অতি সুন্দরব্রুপে প্রতিপন্ন” করেন।৬ শাস্ত্রী মহোদয়ের প্রবন্ধ উপলক্ষ করিয়া সেই অধিবেশনে যে-“বিচার বিতর্ক’ উপস্থিত হয় তাহাতে হীরেন্দ্রনাথ দত্ত মহাশয় “ব্যাকরণের উদ্দেশ্য ১ এইটি এবং অন্যান্ত কয়েকটি উদাহরণ গ্রন্থাকারে প্রকাশের সময় আর মুদ্রিত হয় নাই । ২ দ্রষ্টব্য : সাহিত্য-পরিষৎ-পত্রিক, ৮ম ভাগ (১৩০৮) ; বাংলাব্যাকরণ– রামেন্দ্রসুন্দর ত্রিবেদী, পৃ. ২• ১-২২৯ । বঙ্গীয় সাহিত্যপরিষদের কার্যবিবরণ, পৃ, /•-৫ly। ৩ দ্রষ্টব্য : বাংলা-শব্দ-তত্ত্ব— শ্ৰীজ্ঞানেন্দ্রমোহন দাস : সাহিত্য-পরিরষৎ-পত্রিক, ৮ম ভাগ ১ম সংখ্যা * २२-२० ।। -৪ শব্দ-সংগ্রহ : সাহিত্য-পরিষৎ-পত্রিক, ৮ম ভাগ ২য় সংখ্যা . ۹ اه هاد -ه ৫ সাহিত্য-পরিষৎ-পত্রিকা— ৮ম ভাগ , ১ম সংখ্যা পৃ. ২৯, ২য় সংখ্যা পৃ. ৭৩ ৷ ৬ বাংলাব্যাকরণ— হরপ্রসাদ শাস্ত্রী : সাহিত্য-পরিষৎ-পত্রিক, ৮ম ভাগ ১ম সংখ্যা । ৭ এই বিচারবিতর্কে নিম্নলিখিত ব্যক্তিগণ ষোগ দিয়াছিলেন : বীরেশ্বর পড়ে, চারুচন্দ্র ঘোষ, সতীশচনা বিদ্যাভূষণ, হীরেন্দ্রনাথ দত্ত, রবীন্দ্রনাথ, রামেন্দ্রসুন্দর ত্রিবেদী, যোগীন্দ্রনাথ বসু, সুরেশচন্দ্র সমাজপতি ।