পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বলাক সেই সব দেখা আজি শিহরিছে দিকে দিকে ঘাসে ঘাসে নিমিখে নিমিখে, বেণুবনে ঝিলিমিলি পাতার ঝলক-ঝিকিমিকে। কত নব নব অবগুণ্ঠনের তলে দেখিয়াছ কত ছলে চুপে চুপে . “ প্রেয়সীর মুখ কত রূপে রূপে জন্মে জন্মে, নামহারা নক্ষত্রের গোধূলি-লগনে । তাই আজি নিখিল গগনে অনাদি মিলন তব অনস্ত বিরহ এক পূর্ণ বেদনায় ঝংকারি উঠিছে অহরহ। তাই যা দেখিছ তারে ঘিরেছে নিবিড় যাহা দেখিছ না তারি ভিড় । তাই আজি দক্ষিণ পবনে ফাঙ্কনের ফুলগন্ধে ভরিয়া উঠিছে বনে বনে ব্যাপ্ত ব্যাকুলতা, বহুশত জনমের চোখে-চোখে কানে-কানে কথা । ৭ ফাল্গুন ১৩২২ শিলাইদ 8 S যে-কথা বলিতে চাই, বলা হয় নাই, ৯ সে কেবল এই— চিরদিবসের বিশ্ব অঁাখিসম্মুখেই দেখিকু সহস্রবার দুয়ারে আমার । ৬৭