পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


이 8 রবীন্দ্র-রচনাবলী 88 যৌবন রে, তুই কি রবি মুখের খাচাতে । তুই যে পারিস কাটাগাছের উচ্চ ডালের পরে পুচ্ছ নাচাতে । তুই পথহীন সাগরপারের পান্থ, তোর ডানা যে অশান্ত অক্লান্ত, অজানা তোর বাসার সন্ধানে রে অবাধ যে তোর ধাওয়া ; ঝড়ের থেকে বজ্রকে নেয় কেড়ে তোর যে দাবিদাওয়া । যৌবন রে, তুই কি কাঙাল, আয়ুর ভিখারি। মরণ-বনের অন্ধকারে গহন কাটাপথে তুই যে শিকারি। মৃত্যু যে তার পাত্রে বহন করে অমৃতরস নিত্য তোমার তরে ; বসে আছে মানিনী তোর প্রিয়া মরণ-ঘোমটা টানি । সেই আবরণ দেখ, রে উতগরিয়৷ মুগ্ধ সে মুখখানি । যৌবন রে, রয়েছ কোন তানের সাধনে । তোমার বাণী শুষ্ক পাতায় রয় কি কভু বাধ৷ পুথির বাধনে । তোমার বাণী দখিন হাওয়ার বীণায় অরণ্যেরে আপনাকে তার চিনায়, তোমার বাণী জাগে প্রলয়মেঘে ঝড়ের ঝংকারে ;