পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


b"Sり রবীন্দ্র-রচনাবলী হেলায় খেলায় ক্ষয় হয়, পাছে বিন গানেই মিলনবেল ক্ষয় হয়। যখন তাওবে মোর ডাক পড়ে, পাছে তার তালে মোর তাল না মেলে সেই ঝড়ে । যখন মরণ এসে ডাকবে শেষে বরণগানে পাছে প্রাণে মোর বাণী সব লয় হয়, পাছে বিনা গানেই বিদায়বেলা লয় হয় । স্থলিতচ্ছন্দ স্বরসভার অভিশাপে গন্ধর্বের দেহশ্ৰী হল বিকৃত, অরুণেশ্বর নামে তার জন্ম হল গান্ধাররাজগৃহে । মধুত্র ইন্দ্রাণীর পাদপীঠে মাথা রেখে পড়ে রইল, বললে, “ঘটিয়ে না বিচ্ছেদ দেবী, গতি হোক আমাদের একই লোকে, একই দুঃখভোগে, একই অবমাননায়।” শচী সকরুণ দৃষ্টিতে ইন্দ্রের পানে তাকালেন। ইন্দ্র বললেন, “তথাস্তু, যাও মর্তে, সেখানে দুঃখ পাবে, দুঃখ দেবে। সেই দুঃখে ছন্দঃপাতন অপরাধের ক্ষয় ।” বিদায়গান ভরা থাকৃ স্মৃতিসুধায় বিদায়ের পাত্রখানি, মিলনের উৎসবে তায় ফিরায়ে দিয়ে আনি । বিষাদের অশ্রুজলে নীরবের মর্মতলে গোপনে উঠুক ফ’লে হৃদয়ের নূতন বাণী । যে পথে যেতে হবে সে পথে তুমি একা, নয়নে আঁধার রবে ধেয়ানে আলোকরেখা ।