পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কালের যাত্রা ১২১ তৃতীয় নাগরিক ওই রশিটার দিকে চাইতে ভয় করে । ওটা যেন যুগান্তের নাড়ী— সান্নিপাতিক জরে আজ দব দব করছে। সন্ন্যাসীর প্রবেশ সন্ন্যাসী সর্বনাশ এল । গুরুগুরু শব্দ মাটির নীচে । ভূমিকম্পের জন্ম হচ্ছে । গুহার মধ্য থেকে আগুন লকৃলকৃ মেলছে রসনা । পূর্বে পশ্চিমে আকাশ হয়েছে রক্তবর্ণ। প্রলয়দীপ্তির আঙটি পরেছে দিকৃচক্রবাল । [ প্রস্থান প্রথম নাগরিক দেশে পুণ্যাত্মা কেউ নেই কি আজ। ধরুক-না এসে দড়িটা। দ্বিতীয় নাগরিক এক-একটি পুণ্যাত্মাকে খুজে বের করতেই এক-এক যুগ যায় বয়ে— ততক্ষণ পাপাত্মাদের হবে কী দশা । তৃতীয় নাগরিক পাপাত্মাদের কী হবে তা নিয়ে ভগবানের মাথাব্যথা নেই। দ্বিতীয় নাগরিক সে কী কথা । সংসার তো পাপাত্মাদের নিয়েই। তারা না থাকলে তো লোকনাথের রাজত্ব উজাড় । পুণ্যাত্মা কালেভদ্রে দৈবাৎ আসে, আমাদের ঠেলায় দৌড় মারে বনে জঙ্গলে গুহায় ।