পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


3 ९२ রবীন্দ্র-রচনাবলী প্রথম নাগরিক দড়িটার রঙ যেন এল নীল হয়ে । সামলে কথা কোস । মেয়েদের প্রবেশ (2) বাজা ভাই, শাখ বাজা— রথ না চললে কিছুই চলবে না। চড়বে না হাড়ি, বুলবুলিতে খেয়ে যাবে ধান। এরই মধ্যে আমার মেজো ছেলের গেছে চাকরি, তার বউট শুষছে জরে । কপালে কী আছে জানি নে । প্রথম নাগরিক মেয়েমানুষ, তোমরা এখানে কী করতে । কালের রথযাত্রায় কোনো হাত নেই তোমাদের। কুটনো কোটো গে ঘরে । দ্বিতীয় কেন, পুজো দিতে তো পারি । , আমরা না থাকলে পুরুতের পেট হত না এত মোট । গড় করি তোমায় দড়ি-নারায়ণ | প্রসন্ন হও । এনেছি তোমার ভোগ। ওলো, ঢাল ঢাল ঘি, ঢাল দুধ, গঙ্গাজলের ঘটি কোথায়, ঢেলে দে-না জল। পঞ্চগব্য রাখ, ওইখানে, জালা পঞ্চপ্রদীপ । বাবা দড়ি-নারায়ণ, এই আমার মানত রইল, তুমি যখন নড়বে মাথা মুড়িয়ে চুল দেব ফেলে। তৃতীয় এক মাস ছেড়ে দেব ভাত, খাব শুধু রুটি। বলো-না ভাই, সবাই মিলে— জয় দড়ি-নারায়ণের জয় ।