পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কালের যাত্রা প্রথম নাগরিক কোথাকার মুর্থ তোরা— দে মহাকালনাথের জয়ধ্বনি । 2 কোথায় তোমাদের মহাকালনাথ ? দেখি নে তো চক্ষে । দড়ি-প্রভুকে দেখছি প্রত্যক্ষ— হনুমানপ্রভুর লঙ্কা-পোড়ানো লেজখানার মতো— কী মোটা, কী কালো, আহা দেখে চক্ষু সার্থক হল । মরণকালে ওই দড়ি-ধোওয়া জল ছিটিয়ে দিয়ে৷ আমার মাথায় । দ্বিতীয়। গালিয়ে নেব আমার হার, আমার বাজুবন্দ, দড়ির ডগা দেব সোনা-বাধিয়ে । তৃতীয়া আহা, কী সুন্দর রূপ গো । 2 | যেন যমুনানদীর ধারা । দ্বিতীয়া যেন নাগকন্যার বেণী । তৃতীয়া যেন গণেশঠাকুরের শুড় চলেছে লম্বা হয়ে, দেখে জল আসে চোখে । সন্ন্যাসীর প্রবেশ e দড়ি-ঠাকুরের পুজো এনেছি ঠাকুর । কিন্তু পুরুত যে নড়েন না, মস্তর পড়বে কে । সন্ন্যাসী কী হবে মস্তরে । কালের পথ হয়েছে দুর্গম । 〉ミや