পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৪৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


〉SS রবীন্দ্র-রচনাবলী প্রথম সৈনিক আজ শূদ্র পড়ে শাস্ত্র, কাল লাঙল ধরবে ব্রাহ্মণ । সর্বনাশ ! দ্বিতীয় সৈনিক চল-না ওদের পাড়ায় গিয়ে প্রমাণ করে আসি— ওরাই মানুষ না আমরা । দ্বিতীয় নাগরিক এ দিকে আবার কোন বুদ্ধিমান বলেছে রাজাকে— কলিযুগে না চলে শাস্ত্র, না চলে শস্ত্র, চলে কেবল স্বর্ণচক্র । তিনি ডাক দিয়েছেন শেঠজিকে। প্রথম সৈনিক রথ যদি চলে বেনের টানে 曾 তবে গলায় অস্ত্র বেঁধে জলে দেব ডুব। দ্বিতীয় সৈনিক দাদা, রাগ কর মিছে, সময় হয়েছে বাকা । এ যুগে পুষ্পধন্থর ছিলেটাও বেনের টানেই দেয় মিঠে স্বরে টংকার। তার তীরগুলোর ফল। বেনের ঘরে শানিয়ে না আনলে ঠিক জায়গায় বাজে না বুকে । তৃতীয় সৈনিক তা সত্যি । এ কালের রাজত্বে রাজা থাকেন সামনে, পিছনে থাকে বেনে। যাকে বলে অর্ধ-বেনে-রাজেশ্বর মূতি । সন্ন্যাসীর প্রবেশ প্রথম সৈনিক এই-যে সন্ন্যাসী, রথ চলে না কেন আমাদের হাতে । সন্ন্যাসী তোমরা দড়িটাকে করেছ জর্জর । যেখানে যত তীর ছুড়েছ, বিধেছে ওর গায়ে।