পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কালের যাত্রা দলপতি আমরাই তো জোগাই অন্ন, তাই তোমরা বাচ - আমরাই বুনি বস্ত্র, তাতেই তোমাদের লজ্জারক্ষা । সৈনিক সর্বনাশ ! এতদিন মাথা হেঁট করে বলে এসেছে ওরা— তোমরাই আমাদের অন্নবস্ত্রের মালিক। আজ ধরেছে উলটো বুলি, এ তো সহ হয় না। মন্ত্রী সৈনিকের প্রতি চুপ করে । সর্দার, মহাকালের বাহন তোমরাই, তোমরা নারায়ণের গরুড় । এখন তোমাদের কাজ সাধন করে যা ও তোমরা । তার পরে আসবে আমাদের কাজের পালা । দলপতি আয় রে ভাই, লাগাই টান, মরি আর বাচি । মন্ত্রী কিন্তু বাবা, সাবধানে রাস্ত বঁচিয়ে চোলো । বরাবর যে রাস্তায় রথ চলেছে যেয়ে৷ সেই রাস্তা ধরে । পোড়ো না যেন একেবারে আমাদের ঘাড়ের উপর । দলপতি কখনো বড়ে রাস্তায় চলতে পাই নি, তাই রাস্ত চিনি নে । রথে আছেন যিনি তিনিই সামলাবেন। আয় ভাই, দেখছিস রথচূড়ায় কেতনটা উঠছে দুলে। বাবার ইশারা । ভয় নেই আর, ভয় নেই। ওই চেয়ে দেখ, রে ভাই, মরা নদীতে যেমন বান আসে দড়ির মধ্যে তেমনি প্রাণ এসে পৌচেছে। \\©ግ