পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ost B রবীন্দ্র-রচনাবলী মেজের উপরে খুলিয়া ধরিলেন। হরিহর দেখিল, তাহাতে নানাপ্রকার চক্রে নানা সাংকেতিক চিহ্ন আঁকা ; আর সকলের নিম্নে একটি প্রকাগু ছড়া লেখা আছে, তাহার আরম্ভট এইরূপ : পায়ে ধরে সাধা । রা নাহি দেয় রাধা ॥ শেষে দিল রা, . পাগোল ছাড়ো পা ৷ তেঁতুল-বটের কোলে দক্ষিণে ষাও চলে ॥ ঈশানকোণে ঈশানী, কহে দিলাম নিশানী। ইত্যাদি। হরিহর কহিল, “বাবা, কিছুই তো বুঝিলাম না।” সন্ন্যাসী কহিলেন, “কাছে রাখিয়া দাও, দেবীর পূজা করে । তাহার প্রসাদে তোমার বংশে কেহ-না-কেহ এই লিখন বুঝিতে পারিবে। তখন সে এমন ঐশ্চৰ্য পাইবে জগতে যাহার তুলনা নাই।” হরিহর মিনতি করিয়া কহিল, “বাবা কি বুঝাইয়া দিবেন না।” সন্ন্যাসী কহিলেন, “না। সাধনা দ্বারা বুঝিতে হইবে।” এমন সময় হরিহরের ছোটো ভাই শংকর আসিয়া উপস্থিত হইল। তাহাকে দেখিয়া হরিহর তাড়াতাড়ি লিখনটি লুকাইবার চেষ্টা করিল। সন্ন্যাসী হাসিয়৷ কহিলেন, “বড়ো হইবার পথের দুঃখ এখন হইতেই শুরু হইল। কিন্তু গোপন করিবার দরকার নাই। কারণ, ইহার রহস্য কেবল একজনমাত্রই ভেদ করিতে পারিবে, হাজার চেষ্টা করিলেও আর-কেহ তাহ পারিবে না। তোমাদের মধ্যে সেই লোকটি যে কে তাহা কেহ জানে না। অতএব ইহা সকলের সম্মুখেই নিৰ্ভয়ে খুলিয়া রাখিতে পারে।” • সন্ন্যাসী চলিয়া গেলেন। কিন্তু হরিহর এ কাগজটি লুকাইয়া না রাখিয়া থাকিতে পারিল না। পাছে আর কেহ ইহা হইতে লাভবান হয়, পাছে তাহার ছোটো ভাই শংকর ইহার ফলভোগ করিতে পারে, এই আশঙ্কায় হরিহর এই কাগজটি একটি কঁঠালকাঠের বাক্সে বন্ধ করিয়া তাহদের গৃহদেবতা জয়কালীর আসনতলে লুকাইয়। রাখিল। প্রত্যেক অমাবস্তায় নিশীথরাত্রে দেবীর পূজা সারিয়া সে একবার করিয়া সেই কাগজটি খুলিয়া দেখিত, যদি দেবী প্রসন্ন হইয় তাহাকে অর্থ বুঝিবার শক্তি দেন।