পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8२ রবীন্দ্র-রচনাবলী পুণ্যতীর্থতটে সে ষে তোমার প্রসাদ পেতে চায়। সে ডাকিছে— মিথ্যাশঙ্কা-নাগপাশ ঘুচাও ঘূচাও, মরণেরে যে কালিম লেপিয়াছি সে তুমি মুছাও ; গম্ভীর অভয়মূর্তি মরণের তব কলধ্বনিমাঝে গান ঢেলে দিক তরণের এ জন্মের শেষ ঘাটে ; নিরুদ্দেশ যাত্রীর ললাটে ম্পর্শ দিক আশীৰ্বাদ তব, নিক সে মৃতন পথে যাত্রার পাথেয় অভিনব ; শেষ দণ্ডে ভরে দিক তার কান অজানা সমুদ্রপথে তব নিত্য-অভিসার-গান। শাস্তিনিকেতন רסן 8וט\5 তীর্থযাত্ৰিণী তীর্থের ষাত্রিণী ও যে, জীবনের পথে শেষ আধক্রোশটুকু টেনে টেনে চলে কোনোমতে । হাতে নামজপ-ঝুলি, পাশে তার রয়েছে পুটুলি । ভোর হতে ধৈর্য ধরি বসি ইস্টেশনে অস্পষ্ট ভাবনা আসে মনে— আর কোনো ইস্টেশনে আছে যেন আর কোনো ঠাই, যেথা সব ব্যর্থতাই আপনায় হারানো অর্থেরে ফিরে পায়, যেথা গিয়ে ছায়া কোনো-এক রূপ ধরি পায় যেন কোনো-এক কায় । বুকের ভিতরে ওর পিছু হতে দেয় দোল আশৈশব-পরিচিত দূর সংসারের কলরোল