পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী মানব-হৃদয়ের বাসনা নিশীথে রয়েছি জেগে ; দেখি অনিমিখে, লক্ষ হৃদয়ের সাধ শূন্তে উড়ে যায়। কত দিক হতে তারা ধায় কত দিকে কত না অদৃশু-কায়া ছায়া আলিঙ্গন বিশ্বময় কারে চাহে করে হায় হায় । কত স্থতি খুজিতেছে শ্মশান-শয়ন ; অন্ধকারে হেরো শত তুষিত নয়ন ছায়াময় পাখি হয়ে কার পানে ধায় । ক্ষীণশ্বাস মুমুধুর অতৃপ্ত বাসনা ধরণীর কুলে কুলে ঘুরিয়া বেড়ায় । উদেশে ঝরিছে কত অশ্রবারিকণা চরণ খুজিয়া তারা মরিবারে চায় । কে শুনিছে শত কোটি হৃদয়ের ডাক । নিশীথিনী স্তব্ধ হয়ে রয়েছে অবাক । সিন্ধুগর্ভ উপরে স্রোতের ভরে ভাসে চরাচর, নীল সমূত্রের পরে নৃত্য করে সারা । কোথা হতে ঝরে যেন অনন্ত নিঝর করে আলোকের কণা রবি শশী তারা ঝরে প্রাণ, ঝরে গান, করে প্রেমধারা পূর্ণ করিবারে চায় আকাশ সাগর । সহসা কে ডুবে যায় জলবিম্বপারী, ছু-একটি আলো-রেখা যায় মিলাইয়া