পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোধূলির তীরে বসে কেঁদেছে যে জন ফেলেছে আকাশে চেয়ে অশ্রজল কত, তার অশ্র পড়িবে কি হইয়া নুতন নবপ্রভাতের মাঝে শিশিরের মতো । সায়াহ্নের কুঁড়িগুলি আপন টুটিয়া প্রভাতে কি ফুল হয়ে উঠে না ফুটিয়া । প্রত্যাশা সকলে আমার কাছে যত কিছু চায় সকলেরে আমি তাহা পেরেছি কি দিতে ! আমি কি দিই নি ফাকি কত জনে হায়, রেখেছি কত না ঋণ এই পৃথিবীতে। - আমি তবে কেন বকি সহস্ৰ প্ৰলাপ, সকলের কাছে চাই ভিক্ষা কুড়াইতে । এক তিল না পাইলে দিই অভিশাপ অমনি কেন রে বসি কাতরে কাদিতে । হা ঈশ্বর, আমি কিছু চাহি নাকো আর ঘুচাও আমার এই ভিক্ষার বাসনা। মাথায় বাহয়া লয়ে চির ঋণভার *পাই নি” “পাই নি” বলে আর কাদিব না । তোমারেও মাগিব না, অলস কাদনি ; আপনারে দিলে তুমি আসিবে আপনি ॥