পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী শুষ্ক খুলি তুলি শুধু স্বধা-পিপাসায় প্রেম বলে পরিয়াছি মরণ-বন্ধন । কতু পড়ি কভু উঠি, হাসি আর কাদি— খেলাঘর ভেঙে পড়ে রচিবে সমাধি । বাসনার ফাদ ষারে চাই, তার কাছে আমি দিই ধরা, সে আমার না হইতে আমি হই তার । পেয়েছি বলিয়ে মিছে অভিমান করা, অন্তেরে বাধিতে গিয়ে বন্ধন আমার । নিরখিয়া দ্বারমুক্ত সাধের ভাণ্ডার দুই হাতে লুটে নিই রত্ন ভূরি ভূরি, নিয়ে যাব মনে করি, ভারে চলা ভার, চোরা দ্রব্য বোঝা হয়ে চোরে করে চুরি । চিরদিন ধরণীর কাছে ঋণ চাই, পথের সম্বল বলে জমাইয়া রাখি, আপনারে বাধা রাখি সেটা ভুলে ধাই, পাথেয় লইয়া শেষে কারাগারে থাকি । বাসনার বোঝা নিয়ে ডোবে-ভোবে তরী, ফেলিতে সরে না মন, উপায় কী করি ॥ চিরদিন 3. কোথা রাত্রি, কোথা দিন, কোথা ফুটে চন্দ্র সূর্ব তারা, কে বা আসে কে বা যায়, কোথা বসে জীবনের মেলা, কে বা হাসে কেবা গায়, কোথা খেলে হৃদয়ের খেলা, কোথা পথ, কোথা গৃহ, কোথা পান্থ, কোথা পথহারা।