পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


98९ রবীন্দ্র-রচনাবলী यूश्९ दिशांन छ्ॉम्नां, विब्रश् *उँौद्र, প্রচ্ছন্ন হৃদয়রুদ্ধ আকাজক্ষা অধীর, বর্ণন-অতীত যত অস্ফুট বচন, নির্জন ফেলিত ছেয়ে মেঘের মতন । যথা দিবা-অবসানে, নিশীথ-নিলয়ে বিশ্ব দেখা দেয় তার গ্ৰহতারা লয়ে, হাশুপরিহাসমুক্ত হৃদয়ে আমার দেখিত সে অস্তহীন জগৎ বিস্তার। নিম্নে শুধু কোলাহল, খেলাধুলা, হাস, উপরে নির্লিপ্ত শান্ত অস্তুর-আকাশ । আলোকেতে দেখো শুধু ক্ষণিকের খেলা, অন্ধকারে অছি আমি অসীম একেলা । কতটুকু ক্ষুদ্র মোরে দেখে গেছ চলে, কত ক্ষুদ্র সে বিদায় তুচ্ছ কথা বলে । কল্পনার সত্যরাজ্য দেখাই নি তারে, বসাই নি এ নির্জন আত্মার আঁধারে । এ নিভৃতে, এ নিস্তন্ধে এ মহত্ব মাঝে দুটি চিত্ত চিরনিশি যদি রে বিরাজে, হাসিহীন শব্বশূন্ত ব্যোম দিশহারা, প্রেমপূর্ণ চারি চক্ষু জাগে চারি তারা । প্রাস্তি নাই, তৃপ্তি নাই, বাধা নাই পথে, জীবন ব্যাপিয়া যায় জগতে জগতে, দুটি প্রাণতন্ত্রী হতে পূর্ণ একতানে উঠে গান অসীমের সিংহাসনপানে । ২• বৈশাখ, ১৮৮৮