পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


خاذ बैदौञ्ज-बंछनांवलौ দিনাণ্ডে দেহের স্মৃতি এক বার আসে নিডি, কলরবভরা প্রীতি লয়ে তার মুখে, দিবসের ভার যত তবে হয় আপগত নিশি নিমিষের মতো কাটে স্বপ্নমুখে । সকলি তো মনে আছে, যত দিন ছিল কাছে কত কথা বলিয়াছে কত ভালোবেসে, কত কথা শুনি নাই, হৃদয়ে পায় নি ঠাই, মুহূর্ত শুনিয়া তাই ভুলেছি নিমেষে । পাতা পোরাবার ছলে আজ সে যা কিছু বলে তাই শুনে মন গলে চোখে আসে জল, তারি লাগি কত ব্যথা, কত মনোব্যাকুলতা, দু-চারিটি তুচ্ছ কথা জীবন-সম্বল । দিবা যেন আলোহীন এই দুটি কথা বিনা “তুমি ভালো আছ কি না” “আমি ভালো আছি!” স্নেহ যেন নাম ডেকে কাছে এসে যায় দেখে, দুটি কথা দূর থেকে করে কাছাকাছি। দরশ পরশ যত সকল বন্ধন গত মাঝে ব্যবধান কত নদীগিরিপারে, স্বতি শুধু স্নেহ বয়ে দুহু করম্পর্শ লয়ে অক্ষরের মালা হয়ে বাধে দু-জনারে । কই চিঠি । এল নিশা, তিমিরে ডুবিল দিশ, সারা দিবসের তৃষা রয়ে গেল মনে । অন্ধকার নদীতীরে বেড়াতেছি ফিরে ফিরে, প্রকৃতির শাস্তি ধীরে পশিছে জীবনে । करभ ॐांथि छ्लछ्ल, d कृछि c$fü अथंखल ভিজায় কপোলতল, শুকায় বাতাসে । ক্রমে অশ্রু নাহি বয়, जला नैठल इब्र রজনীর শান্তিময় শীতল নিশ্বাসে ।