পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


प्रांनजी আকাশে অসংখ্য তারা চিত্তাহারা ক্লাভিহারা হৃদয় বিস্ময়ে সারা হেরি একদিঠি । আর যে আসে না জালে भूख ७हे भशंकांटल প্রতি সন্ধ্যা পরকাশে অসীমের চিঠি । चनखु दोब्रज्रो क्एइ, चककॉन्त्र झटङ कtट्, “যে রহে যে নাহি রহে কেহু নহে একা । সীমা-পরপারে থাকি সেথা হতে সবে ডাকি, প্রতি রাত্রে লিখে রাখি জ্যোতিপত্ৰলেখা ।” ২৩ বৈশাখ, ১৮৮৮ বধু “বেলা ষে পড়ে এল, জলকে চল!”— পুরানো সেই স্বরে কে যেন ভাকে দূরে, কোথ। সে ছায়া সখী, কোথা সে জল । কোথা সে বাধা ঘাট, অশথ-তল ! ছিলাম আনমনে একেলা গৃহকোণে, কে যেন ডাকিল রে "জলকে চল ।” কলসী লয়ে ৰাখে পথ সে বাক, বামেতে মাঠ শুধু সদাই করে খুধু, ভাহিনে বঁাশবন হেলায়ে শাখা । দিঘির কালো জলে সাঝের আলো বলে, छू-थां८ग्न घन बन छ्ॉब्रॉग्न छांक । গভীর খির নীরে ভাসিয়া যাই ধীরে, পিক ফুহুরে তীরে অমিয়-মাখা । পথে আসিতে ফিরে, আঁধার তরুশিরে সহসা দেখি টাঙ্গ আকাশে উাকা । y bre