পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৮৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রঘুপতি। বিসর্জন দ্বিতীয় দৃশ্য মন্দির প্রাঙ্গণ জয়সিংহ ও রঘুপতি গেছে গর্ব, গেছে তেজ, গেছে ব্রাহ্মণত্ব । ওরে বৎস, আমি তোর গুরু নহি অার। কাল আমি অসংশয়ে করেছি আদেশ গুরুর গৌরবে, আজ শুধু সায়নয়ে ভিক্ষা মাগিবার মোর আছে অধিকার । অন্তরেতে সে দীপ্তি নিবেছে, যার বলে তুচ্ছ করিতাম আমি ঐশ্বর্ধের জ্যোতি, রাজার প্রতাপ । নক্ষত্ৰ পড়িলে খসি তার চেয়ে শ্রেষ্ঠতর মাটির প্রদীপ । তাহারে খুজিয়া ফিরে পরিহাসভরে খন্তোত ধূলির মাঝে, খুজিয়া না পায় । দীপ প্রতিদিন নেবে, প্রতিদিন জলে, বারেক নিবিলে তারা চির-অন্ধকার । আমি সেই চিরদীপ্তিহীন ; সামান্ত এ পরমায়ু, দেবতার অতি ক্ষুদ্র দান, ভিক্ষ মেগে লইয়াছি তারি দুটো দিন রাজদ্বারে নতজান্থ হয়ে। জয়সিংহ, সেই দুই দিন যেন ব্যর্থ নাহি হয়। সেই দুই দিন যেন আপন কলঙ্ক ঘুচায়ে মরিয়া যায়। কালামুখ তার রাজরক্তে রাঙা করে তবে যায় যেন । বৎস, কেন নিরুত্তর ? গুরুর আদেশ নাহি আর ; তবু তোরে করেছি পালন জাশৈশব, কিছু নহে তার অনুরোধ ? '©¢ዓ