পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 ov ब्रवैौटश-ब्रछनांदलौ দিকে চাহিয়া কম্পিতম্বরে কহিলেন, “বৎস, তোমার এমন ভাব দেখিতেছি কেন । আমি তোমার কী করিয়াছি যে, তুমি অল্পে অল্পে আমার কাছ হইতে সরিয়া যাইতেছ।” জয়সিংহ কী বলিতে চেষ্টা করিলেন, রঘুপতি তাহাতে বাধা দিয়া বলিতে नॉशिष्णन, “७क भूहूडंद्र खछ कि जांभांब cन्नरश्द्र अखांब cपथिब्राइ । चाभि कि তোমার কাছে কোনো অপরাধ করিয়াছি, জয়সিংহ। যদি করিয়া থাকি—তবে আমি তোমার গুরু, তোমার পিতৃতুল্য, আমি তোমার কাছে ক্ষমা ভিক্ষা চাহিতেছি, আমাকে মার্জনা করে৷ ” জয়সিংহ বজ্রাহতের ন্যায় চমকিয়া উঠিলেন-গুরুর চরণ ধরিয়া কাদিতে লাগিলেন, বলিলেন, “পিতা, আমি কিছুই জানি না, আমি কিছুই বুঝিতে পারি না, আমি কোথায় যাইতেছি দেখিতে পাইতেছি না।” রঘুপতি জয়সিংহের হাত ধরিয়া বলিলেন, “বংস, আমি তোমাকে তোমার শৈশব হইতে মাতার ন্যায় স্নেহে পালন করিয়াছি, পিতার অধিক যত্বে শাস্ত্রশিক্ষা দিয়াছি— তোমার প্রতি সম্পূর্ণ বিশ্বাস স্থাপন করিয়া সখার ন্যায় তোমাকে আমার সমুদয় মন্ত্রণার সহযোগী করিয়াছি । আজ তোমাকে কে আমার পাশ হইতে টানিয়া লইতেছে, এতদিনকার স্নেহমমতার বন্ধনকে বিচ্ছিন্ন করিতেছে । তোমার উপর আমার যে দেব-দত্ত অধিকার জন্মিয়াছে সে পবিত্র অধিকারে কে হস্তক্ষেপ করিয়াছে । বলো, বৎস, সেই মহাপাতকীর নাম বলে ।” জয়সিংহ বলিলেন, “প্ৰভু, আপনার কাছ হইতে আমাকে কেহ বিচ্ছিন্ন করে নাই —আপনিই আমাকে দূর করিয়া দিয়াছেন । আমি ছিলাম গৃহের মধ্যে, আপনি সহসা আমাকে পথের মধ্যে বাহির করিয়া দিয়াছেন। আপনি বলিয়াছেন, কেই বা পিতা, কেই বা মাতা, কেই বা ভ্রাতা। আপনি বলিয়াছেন, পৃথিবীতে কোনো বন্ধন নাই, স্নেহপ্রেমের পবিত্র অধিকার নাই । যাহাকে মা বলিয়া জানিতাম, আপনি তাহাকে বলিয়াছেন শক্তি ; ষে যেখানে হিংসা করিতেছে, যে যেখানে রক্তপাত করিতেছে যেখানেই ভাইয়ে ভাইয়ে বিবাদ, যেখানেই দুই জন মানুযে যুদ্ধ, সেইখানেই এই তৃষিত শক্তি রক্তলালসায় তাহার খর্পর লইয়া দাড়াইয়া আছেন। আপনি মায়ের কোল হইতে আমাকে এ কী রাক্ষসীর দেশে নির্বাসিত করিয়া দিয়াছেন।” রঘুপতি অনেক ক্ষণ স্তম্ভিত হইয়া বসিয়া রহিলেন। অবশেষে নিঃশ্বাস ফেলিয়া বলিলেন, “তবে তুমি স্বাধীন হইলে, বন্ধনমুক্ত হইলে, তোমার উপর হইতে আমার সমস্ত অধিকার আমি প্রত্যাহরণ করিলাম, তাহাতেই যদি তুমি সুখী হও, তবে তাই হউক।” বলিয়া উঠিবার উদ্যোগ করিলেন।