পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবির মন্তব্য যৌবন হচ্ছে জীবনে সেই ঋতুপরিবর্তনের সময় যখন ফুল ও ফসলের প্রচ্ছন্ন প্রেরণা নানা বর্ণে ও রূপে অকস্মাৎ বাহিরে প্রত্যক্ষ হয়ে ওঠে । কড়ি ও কোমল আমার সেই নবযৌবনের রচনা। আত্মপ্রকাশের একটা প্রবল আবেগ তখন যেন প্রথম উপলব্ধি করেছিলুম। মনে পড়ে তখনকার দিনে নিজের মনের একটা উদ্বেল অবস্থা । তখন আমার বেশভূষায় আবরণ ছিল বিরল। গায়ে থাকত খুতির সঙ্গে কেবল একটা পাতল চাদর, তার খুটোয় বাধা ভোরবেলায় তোলা এক মুঠো বেল ফুল, পায়ে এক জোড়া চটি । মনে আছে থ্যাকারের দোকানে বই কিনতে গেছি কিন্তু এর বেশি পরিচ্ছন্নতা নেই, এতে ইংরেজ দোকানमारव्रब्र यौङ्कड श्रामवकांग्नमांब्र धष्ठि छै८°चक ●धकां* झड ।। ७झे यांच्चবিস্মৃত ৰেআইনী প্ৰমত্তত কড়ি ও কোমলের কবিতায় অবাধে প্রকাশ পেয়েছিল । এই প্রসঙ্গে একটা কথা মনে রাখতে হবে এই রীতির কবিতা তখনো প্রচলিত ছিল না । সেই জঙ্গেই কাব্যবিশারদ প্রভৃতি সাহিত্যবিচারকদের কাছ থেকে কটুভাষায় ভৎসনা সস্থ করেছিলুম। সে সব যে উপেক্ষা করেছি অনায়াসে সে কেবল যৌবনের তেজে । আপনার মধ্যে থেকে যা প্রকাশ পাচ্ছিল, সে আমার কাছেও श्नि नूठन ७बर आखब्रिक । उषन ८श्म बैड़िएव्छ ७वः नदौन cनन इड़िा এমন কোনো দেশপ্রসিদ্ধ কবি ছিলেন না র্যার কবিদের কোনো একটা কাব্য-রীতির বাথ পথে চালনা করতে পারতেন । কিন্তু আমি তাদের সম্পূর্ণই ভুলে ছিলুম। আমাদের পরিবারের বন্ধু কৰি বিহারীলালকে ছেলেবেলা থেকে জানভূম এবং তার কবিতার প্রতি अश्ब्रां★ जांभाग्न हिल अछाख । ॐाब्र थबङिङ कविङांब्र ग्रैौङि हेङिगूर्दहे আমার রচনা থেকে সম্পূর্ণ জ্বলিত হয়ে গিয়েছিল। বড়োদাদার স্বপ্নপ্রয়াণের আমি ছিলুম অভ্যন্ত ভক্ত, কিন্তু তার বিশেষ কৰিপ্ৰকৃতির সঙ্গে