পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দিনান্তে বাহিরে তুমি নিলে না মোরে, দিবস গেল বয়ে, তাহাতে মোর যা হয় হ’ক ক্ষতি, অস্তরে যা দিবার ছিল মিলিছে এক হয়ে, চরণে তব গোপনে তার গতি। লুকায়ে ছিল ছায়াতে ফুল, ভরিল তব ডালি, গন্ধভরা বন্দনাতে দিয়েছি ধূপ জালি, প্রদীপ ছিল মলিনশিখ, ধোয়াতে ছিল কালি, দীপ্ত হয়ে উঠিছে তার জ্যোতি। বাহির হতে না যদি লও পুজার এই ডালি চরণে তব গোপনে তার গতি। না-হয় তুমি ওপারে থাকে, এপারে আমি থাকি নীরব এই নীরস মরুতীরে, অন্ধকারে সন্ধ্যাতারা নয়নে দেয় আঁকি মৃদুর তব উদার আঁথিটিরে। ব্যথায় মম তোমারি ছায়া পড়িছে মোর প্রাণে, বিরহ হানি তোমারি বাণী মিলিছে মোর গানে, অলথ স্রোতে ভাবনা ধায় তোমার তটপানে এপার হতে বহিয়া মোর নতি যে-বীণা তব মন্দিরেতে বাজে নি তানে তানে চরণে তব নীরবে তার গতি । ১ শ্রাবণ ১৩৩৪ আম্বোয়াজ জাহাজ