পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


St’s রবীন্দ্র-রচনাবলী লভিয়াছি জীবলোকে মানবজন্মের অধিকার, ধন্ত এই সৌভাগ্য আমার । যেথা যে-অমৃতধারা উৎসারিল যুগে যুগান্তরে জ্ঞানে কর্মে ভাবে, জানি লে আমারি তরে। পুর্ণের যে-কোনো ছবি মোর প্রাণে উঠেছে উজ্জলি জানি তাহ৷ সকলের বলি । ধূলির আসনে বসি ভূমারে দেখেছি ধ্যানচোখে আলোকের অতীত আলোকে । অণু হতে অশীয়ান মহৎ হইতে মহীয়ান, ইঞ্জিয়ের পারে তার পেয়েছি সন্ধান । ক্ষণে ক্ষণে দেখিয়াছি দেহের ভেদিয়া যবনিকা অনির্বাণ দীপ্তিময়ী শিখা ৷ যেখানেই যে-তপস্বী করেছে দুষ্কর যজ্ঞযাগ, আমি তার লভিয়াছি ভাগ । মোহবন্ধমুক্ত যিনি আপমারে করেছেন জয়, তার মাঝে পেয়েছি আমার পরিচয় । যেখানে নিঃশঙ্ক বীর মৃত্যুরে লঙিঘল অনায়াসে, স্থান মোর সেই ইতিহাসে । শ্ৰেষ্ঠ হতে শ্রেষ্ঠ যিনি, যতবার তুলি কেন নাম, তবু তারে করেছি প্রণাম । অস্তরে লেগেছে মোয় স্তন্ধ আকাশের আশীর্বাদ ; উষালোকে আনন্দের পেয়েছি প্রসাদ । এ আশ্চর্ষ বিশ্বলোকে জীবমের বিচিত্র গৌরবে মৃত্যু মোর পরিপূর্ণ হবে।