পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী কচি কচি দুই হাতে থেলিছ তাহারি সাথে, নাই প্রশ্ন, নাই কোনো ভয় । তুমি সর্ব দেহে মনে ভরি লহ প্রতিক্ষণে যে সহজ আনন্দের রস, যাহা তুমি অনায়াসে ছড়াইছ চারিপাশে পুলকিত দরশ পরশ, অামি কবি তারি লাগি আপনার মনে জাগি, বসে থাকি জানালার ধারে । অমরার দূতীগুলি অলক্ষ্য দুয়ার খুলি আসে যায় আকাশের পারে । দিগন্তে নীলিম ছায়া রচে দূরাস্তের মায়া, বাজে সেথা কী অশ্রুত বেণু। মধ্যদিন তন্দ্রাতুর শুনিছে রৌদ্রের স্বর, মাঠে শুয়ে আছে ক্লান্ত ধেনু । চোখের দেখাটি দিয়ে দেহ মোর পায় কী এ, মন মোর বোবা হয়ে থাকে। সব আছে আমি আছি, দুইয়ে মিলে কাছাকাছি আমার সকল-কিছু ঢাকে। যে-আশ্বাসে মর্ত্যভূমি । হে শিশু, জাগাও তুমি, যে নির্মল যে সহজ প্রাণে,