পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৩৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশেষ ২২৩ যাহা নাই তাই বিরাট বিপুল মহা । অনাদি অতীত যুগের প্রবাহ-বহা অসংখ্য ধন, কণামাত্রও তার নাই নাই হয়, নাই সে কোথাও আর ‘দূর করো ছাই এই বলে শেষে যেমনি জালিতু আলো ফিলজফিটার কুয়াশা কোথা মিলাল । স্পষ্ট বুঝিঙ্ক যা-কিছু সমুখে আছে, চক্ষের পরে যাহা বক্ষের কাছে সেই তো অন্তহীন প্রতিপল প্রতিদিন ষা আছে তাহারি মাঝে যাহা নাই তাই গভীর গোপনে সত্য হইয়া রাজে । অতীতকালের যে ছিলেম আমি আজিকার অামি সেই প্রত্যেক নিমেষেই। বাধিয়া রেখেছে এই মুহূর্তজাল সমস্ত ভাবীকাল । অতএব সেই কেদারাটা ষেই জানালায় লব টানি, বসিব আরামে, সে-মুহূর্তেরে চিরদিবসের জানি । অতএব জেনো সন্ন্যাসী হব নাকো, অণরবার যদি ডাক আবার সে ওই মাইক্রোব-ওড়া পথে চলিব মোটর-রথে । ঘরে যদি কেহ রয়