পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৬২ রবীন্দ্র-রচনাবলী আঘাত সোদালের ডালের ডগায় 酶 মাঝে মাঝে পোকাধরা পাতাগুলি কুঁকড়ে গিয়েছে ; বিলিতি নিমের বাকলে লেগেছে উই ; কুরচির গুড়িটাতে পড়েছে ছুরির ক্ষত, কে নিয়েছে ছাল কেটে ; চারা অশোকের নিচেকার দুয়েকটা ডালে শুকিয়ে পাতার আগা কালো হয়ে গেছে । কত ক্ষত, কত ছোটো মলিন লাঞ্চনা, তারি মাঝে অরণ্যের অক্ষুণ্ণ মর্যাদা . শু্যামল সম্পদে তুলেছে আকাশ-পানে পরিপূর্ণ পুজার অঞ্জলি কদর্যের কদাঘাতে দিয়ে যায় কালিমার মলীরেখা, সে-সকলি অধঃসাৎ ক’রে শান্ত প্রসন্নতা ধরণীরে ধন্য করে পুর্ণের প্রকাশে । ফুটিয়েছে ফুল সে যে, ফলিয়েছে ফলভার, বিছিয়েছে ছায়া-আস্তরণ, পাথিরে দিয়েছে বাসা, মৌমাছিরে জুগিয়েছে মধু, বাজিয়েছে পল্লবমর্মর । পেয়েছে সে প্রভাতের পুণ্য আলো, শ্রাবণের অভিষেক, বসন্তের বাতাসের আনন্দমিতালি,—