পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বসন্ত শিরীষ তোমার ভরবে সাজি— ফুটেছে সেই আশে । ঋতুরাজ এ মোর পথের বঁাশির স্বরে স্বরে লুকিয়ে কাদে হাসে। বনপথ ওরে দেখ বা নাই দেখ, ওরে ষাও বা না-যাও ভুলে । ওরে নাই-বা দিলে দোলা, ওরে নাই-বা নিলে তুলে । সভায় তোমার ও কেহ নয়, ওর সাথে নেই ঘরের প্রণয়, যাওয়া-আসার আভাস নিয়ে রয়েছে একপাশে । ঋতুরাজ ওগো ওর সাথে মোর প্রাণের কথা নিশ্বাসে নিশ্বাসে । 1994 রাজা। খুব জমেছে, কবি। স্বরের দোলায় চাদকে দুলিয়েছ। ওই দেখো-না, আমার অর্থসচিবস্থদ্ধ দুলছে । কবি । রাজা । এবার সময় হয়েছে । কিসের সময় । কবি । ঋতুরাজের যাবার সময় । রাজা । আমাদের অর্থসচিবকে চোখে পড়েছে নাকি । কবি । বলেইছি তো, পুর্ণ থেকে রিক্ত, রিক্ত থেকে পুর্ণ, এরই মধ্যে ওঁর আনাগোনা । বাধন পরা, বাঁধন খোলা, এও যেমন এক খেলা, ওও তেমনি এক খেলা । রাজা । আমি কিন্তু ওই পুর্ণ হওয়ার খেলাটাই পছন্দ করি।