পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মহুয়৷ মন্থর মেঘেরে যবে দিগন্তে ধাওয়ায় পুবন হাওয়ায়, কাদে বন শ্রাবণের রাতে প্লাবনের ঘাতে, তখনো নিভাক নীপ গন্ধ দিল পাখির কুলায়ে, বৃন্ত ছিল ক্লাস্তিহীন, তখনো সে পড়ে নি ধুলায় । সেই ফুলে দৃঢ় প্রত্যাশার দিহু উপহার। সজল সন্ধ্যায় তুমি এনেছিলে সখী, একটি কেতকী। তখনো হয় নি দীপ জালা, ছিলাম নিরালা । সারিদেওয়া স্থপারির আন্দোলিত সঘন সৰুজে জোনাকি ফিরিতেছিল অবিশ্রাস্ত কারে খুজে খুজে দাড়াইলে দুয়ারের বাহিরে আসিয়া, গোপনে হাসিয়া । শুধালেম আমি কৌতুহলী ‘কী এনেছ’ বলি’ ৷ পাতায় পাতায় বাজে ক্ষণে ক্ষণে বারিবিন্দুপাত, গন্ধঘন প্রদোষের অন্ধকারে বাড়াইহু হাত । ঝংকারি উঠিল মোর অঙ্গ আচম্বিতে কাটার সংগীতে চমকিছু কী তীব্র হরষে পরুষ পরশে । Vථිකු