পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(t 9o রবীন্দ্র-রচনাবলী চুড়ার পরে চুড়া আকাশে তুলি । আমি যে ভাবনার জটিল জালে বাধিয়া নিতে চাই স্থদুর কালে, সে-জালে আপনারে জড়াই ঠেসে, পথের অধিকার হারাই শেষে । ‘শাল’ কবিতার ভূমিকায় কিশোর কবিবন্ধু বলিয়া যাহার উল্লেখ আছে, তিনি পরলোকগত কবি সতীশচন্দ্র রায় ( ১২৮৮-১৩১০ ) । বৃক্ষরোপণ-উৎসব শাস্তিনিকেতনে প্রথম অনুষ্ঠিত হয় ৩০ আষাঢ় ১৩৩৫ সালে ( ১৪ জুলাই ১৯২৮)। শ্ৰীপ্রতিমা ঠাকুরকে একটি পত্রে ( ৯ শ্রাবণ ১৩৩৫ ) রবীন্দ্রনাথ প্রথমবারের উৎসবের সংক্ষিপ্ত বিবরণ দিয়াছেন : এখানে হল বৃক্ষরোপণ, শ্ৰীনিকেতনে হল হলচালন ।... তোমার টবের বকুলগাছটাকে নিয়ে বৃক্ষরোপণ অনুষ্ঠানটা হল । পৃথিবীতে কোন গাছের এমন সৌভাগ্য কল্পনা করতে পার না । সুন্দরী বালিকার স্বপরিচ্ছন্ন হয়ে শাখ বাজাতে বাজাতে গান গাইতে গাইতে গাছের সঙ্গে সঙ্গে যজ্ঞক্ষেত্রে এল— শাস্ত্রীমশায় সংস্কৃত শ্লোক আওড়ালেন— আমি একে একে ছটা কবিতা পড়লুম— মালা দিয়ে চন্দন দিয়ে ধূপধুনো জালিয়ে তার অভ্যর্থনা হল ।. তার পরে বর্ষামঙ্গল গান হল— আমি এই উপলক্ষ্যে ছোটো একটি গল্পও লিখেছিলুম, সেটা পড়লুম। আমার বেশভূষা দেখলে নিশ্চয় খুশী হতে। একটা কালো রেশমের ধুতি, গায়ে লাল আঙিয়া, মাথায় কালে টুপি, কাধে জরিদেওয়া কালো পাড়ের কোচানো লম্বা চাদর।. পরিশেষ পরিশেষ ১৩৩৯ সালের ভাদ্র মাসে গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়। খেলনার মুক্তি, পত্ৰলেখা, খ্যাতি, বাঁশি, উন্নতি, ভীরু —পরিশেষের এই ছয়টি কবিতা পুনশ্চ গ্রন্থের দ্বিতীয় সংস্করণে গৃহীত হইয়াছে বলিয়া পরিশেষের বর্তমান সংস্করণে বর্জিত হইল। কবিতাগুলি রচনাবলী-সংস্করণে পুনশ্চ’ গ্রন্থের অন্তর্ভূক্ত হইবে। ১ দ্রষ্টব্য : বিচিত্র প্রবন্ধ গ্রন্থে 'বন্ধুস্মৃতি । ২ দ্রষ্টব্য : চিঠিপত্র, তৃতীয় থও, পত্র নং ২৮। ७ बलाई : शन्नउन्छ, छुउँौब्र १७ ।।