পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(t©ჭ রবীন্দ্র-রচনাবলী অসীম প্রাণের বার্তা যবে এসেছিল কানে মরপ্রাণ তুচ্ছ করেছিলে আত্মদানে, অর্থ তার কোথাও কি হবে না সমাধা, জন্মদিন এই বাণী দিক তব চিত্তে আনি,— মর্ত্যের জরায়ু আপনাতে বন্ধ করি লুপ্ত করিবে না তব আয়ু,— অসম্পূর্ণ ক্লিষ্ট প্রাণ— এ গর্তবন্ধনে তার হলে অবসান,— আরবার নবজন্ম লবে পুর্ণের উৎসবে । 'অপুর্ণ কবিতার শেষদুটি বর্জিত অনুচ্ছেদ । র্তাধার তিথিতে তারকাবীথিতে তন্দ্রাজড়িত চন্দ্র । যুখীকলিগুলি দিতেছে আকুলি হিমগদগদ গন্ধ । ক্ষীণ জ্যোৎস্নায়, ঘন কুয়াশায়, ঘুমে জাগরণে, কায়ায় মায়ায়, তোমায় আমায় আলোয় ছায়ায় যুগলে ঘটিল দ্বন্দ্ব । জন্মমরণ-অতীত বেলায় স্মরণের পরপারে তব ভাবনায় মোর চেতনায় এক হল একেবারে । ‘তুমি’ কবিতার বর্জিত প্রথম শ্লোক। স্রষ্টব্য : প্রবাসী, ১৩৪৮ চৈত্র— ‘প্রাগলক্ষ্মী ।