পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী বরণ পুরাণে বলেছে। একদিন নিয়েছিল বেছে স্বয়ম্বরসভাঙ্গনে দময়ন্তী সতী নল-নরপতি ছদ্মবেশী দেবতার মাঝে । অৰ্ঘ্যহারা দেবতারা চলে গেল লাজে । দেবমূর্তি চিনেছে সেদিন, তারা যে ফেলে না ছায়া, তারা অমলিন । সেদিন স্বর্গের ধৈর্য গেল টুটি, ইন্দ্রলোক করিল ভ্ৰকুটি । তাই শুনে কত দিন একা বসে বসে ভেবেছিমু বালিকাবয়সে, আমি হব স্বয়ম্বরা বিশ্বসভাতলে,— দেবতারি গলে দিব মালা তপস্বিনী, মানবের মাঝখানে একদিন লব তারে চিনি । তারি লাগি সর্ব দেহে মনে দিনে দিনে বরমাল্য গাথিব যতনে । কঠিন সে পণ, ভাবি নি কেমনে তারে করিব সাধন । মানুষ-যে দেশে দেশে কত ফেরে দেবতার ছদ্মবেশে ; ললাটে তিলক কারো লেখা, দেখিতে দেখিতে ওঠে কালো হয়ে তার স্বর্ণরেখা। কারো বা কটিতে বাধা শরশুন্য তুণ, কেহ করে বজ্রধ্বনি, নাহি তাহে বজের আগুন।