পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(*२ ২৬ অগস্ট ১৯২৮ রবীন্দ্র-রচনাবলী একা আমি দেখেছি তোমারে— তুমিই ফেল নি ছায়া ছায়ার মাঝারে। মালা হাতে গেকু ধেয়ে, হাসিলে আমার পানে চেয়ে । মোর স্বয়ম্বরে সেদিন মর্ত্যের মুখ ভ্ৰকুটিল অবজ্ঞার ভরে পথবর্তী দূর মন্দিরে সিন্ধুকিনারে পথে চলিয়াছ তুমি। আমি তরু মোর ছায়া দিয়ে তারে মৃত্তিকা তার চুমি। হে তীর্থগামী, তব সাধনার অংশ কিছু-বা রহিল আমার, পথপাশে আমি তব যাত্রার রহিব সাক্ষীরূপে । তোমার পুজায় মোর কিছু যায় ফুলের গন্ধধূপে । তব আহবানে বরণ করিয়া নিয়েছি দুর্গমেরে । ক্লান্তি কিছু-বা নিলাম হরিয়া মোর অঞ্চল-ঘেরে । যা ছিল কঠোর, যাহা নিষ্ঠুর তার সাথে কিছু মিলাই মধুর, যা ছিল অজানা, যাহা ছিল দূর আমি তারি মাঝে থেকে