পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৬২ রবীন্দ্র-রচনাবলী ভয় হয় পাছে যে-সম্পদ চেয়েছিলে মোর কাছে সে-যে মোর নাই, তাই শেষে পড়ে ধরা, দেখ দূর হতে এসে জলাশয়ে জল নাই ভরা। তখন নিয়ো না যেন অপরাধ মোর, হয়ে না কঠোর, তুমি যদি মুগ্ধ মনে ভুলে থাক, তৰু গভীর দীনতা মোর গোপন করি নি আমি কতু । মোর দ্বারে যবে এলে অন্তমনা সে কি মোর কিছু নিয়ে পুরাতে কামনা । নহে নহে, হে রাজন, তোমার অনেক ধন আছে, তাই তুমি আস মোর কাছে দেবার আনন্দ তব পুর্ণ করিবার লাগি ; যদি তাই পুর্ণ হয়, তবে আমি নহি তো অভাগী । ৪ সেপ্টেম্বর ১৯২৮ সৃষ্টিরহস্য স্বষ্টির রহস্য আমি তোমাতে করেছি অনুভব, নিখিলের অস্তিত্বগৌরব । তুমি আছ, তুমি এলে, এ বিস্ময় মোর পানে আপনারে নিত্য আছে মেলে অলৌকিক পদ্মের মতন। অন্তহীন কাল আর অসীম গগন নিদ্রাহীন আলো কী অনাদি মন্ত্রে তারা অঙ্গ ধরি তোমাতে মিলাল । যুগে যুগে কী অক্লাস্ত সাধনায়, অগ্নিময়ী বেদনায়, নিমেষে হয়েছে ধন্য শক্তির মহিমা পেয়ে আপনার সীমা