পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ᎼX9← . রবীন্দ্র-রচনাবলী মৃত্যুঞ্জয় ও দারুকেশ্বরের প্রবেশ একটি বিসদৃশ লম্ব, রোগ, বুটজুতা-পর, ধুতি প্রায় হাটুর কাছে উঠিয়াছে, চোথের নীচে কালী পড়, ম্যালেরিয়া রোগীর চেহার, বয়স বাইশ হইতে বত্রিশ পর্যন্ত যেটা খুশি হইতে পারে। আর-একটি বেঁটে থাটো, অত্যন্ত দাড়ি-গোফ-সংকুল, নাকটি বটিকাকার, কপালটি ঢিবি, কালোকোলো, গোলগাল অক্ষয় । ( অত্যন্ত সৌহার্দ্য-সহকারে উঠিয়া প্রবলবেগে শেক্হাগু করিয়া ) আমুন মিস্টার ন্যাথানিয়াল, আসুন মিস্টার জেরেমায়, বসুন বসুন। ওরে বরফ-জল নিয়ে আয় রে, তামাক দে– মৃত্যুঞ্জয় । ( সহসা রিজাতীয় সম্ভাষণে সংকুচিত হইয়া মৃদুস্বরে ) আজ্ঞে আমার নাম মৃত্যুঞ্জয় গাঙ্গুলি। দারুকেশ্বর । আমার নাম শ্ৰীদারুকেশ্বর মুখোপাধ্যায়। অক্ষয় । ছি মশায়। ও নামগুলো এখনও ব্যবহার করেন বুঝি ? আপনাদের ক্রিশান নাম ? ( আগস্তুকদিগকে হতবুদ্ধি নিরুত্তর দেখিয়া ) এখনও বুঝি নামকরণ হয় নি ? ত, তাতে বিশেষ কিছু আসে যায় না, ঢের সময় আছে। অক্ষয়ের গুড়গুড়ির নল মৃত্যুঞ্জয়ের হাতে প্রদান। সে লোকটা ইতস্তত করিতেছে দেখিয়৷ বিলক্ষণ! আমার সামনে আবার লজ্জা । সাত বছর বয়স থেকে লুকিয়ে তামাক খেয়ে পেকে উঠেছি। ধোয় লেগে লেগে বুদ্ধিতে ঝুল পড়ে গেল। লজ্জা যদি করতে হয় তা হলে আমার তো আর ভদ্রসমাজে মুখ দেখাবার জো থাকে না। তথন সাহস পাইয়। দারুকেশ্বর মৃত্যুঞ্জয়ের হত হইতে ফস করিয়া নল কাড়ির লইয়া ফড, ফড, শব্দে টানিতে আরম্ভ করিল। অক্ষয় পকেট হইতে কড়া বৰ্মার চুরোট বাহির করিয়৷ মৃত্যুঞ্জয়ের হাতে দিলেন। যদিচ তাহার চুরোট অভ্যাস ছিল না, তবু সে সদ্যস্থাপিত ইয়ার্কির খাতিরে প্রাণের মায়। পরিত্যাগ করিয়া মৃদুমন্দ টান দিতে লাগিল এবং কোনো গতিকে কাশি চাপিয়া রাখিল 豔 অক্ষয় । এখন কাজের কথাটা শুরু করা যাক। কী বলেন । মৃত্যুঞ্জয় চুপ করিয়া রহিল দারুকেশ্বর। তা নয় তো কী । শুভস্ত শীঘ্ৰং । অক্ষয় । ( গম্ভীর হইয়া ) মুর্গি না মটন ? মৃত্যুঞ্জয় অবাক হইয়। মাথা চুলকাইতে লাগিল দারুকেশ্বর কিছু না বুঝিয়া অপরিমিত হাসিতে আরম্ভ করিল আরে মশায়, নাম শুনেই হাসি। তা হলে তো গন্ধে অজ্ঞান এবং পাতে পড়লে মারাই