পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> ર 8 রবীন্দ্র-রচনাবলী স্নিগ্ধসজল মেঘকজ্জল দিবসে বিবশ প্রহর অচল অলস আবেশে, শশিতারাহীন অন্ধতামসী যামিনী— কোথা তোরা পুরকামিনী ! আজিকে দুয়ার রুদ্ধ ভবনে ভবনে, জনহীন পথ কঁাদিছে ক্ষুব্ধ পবনে, চমকে দীপ্ত দামিনী—- শূন্তশয়নে কোথা জাগে পুরকামিনী । যুীপরিমল আসিছে সজল সমীরে, ডাকিছে দাদুরী তমালকুঞ্জতিমিরে, জাগে সহচরী, আজিকার নিশি ভুলে না—- নীপশাখে বাধো ঝুলনা । কুসুমপরাগ ঝরিবে ঝলকে ঝলকে, অধরে অধরে মিলন অলকে অলকে— কোথা পুলকের তুলনা ! নীপশাথে সখী, ফুলডোরে বাপে ঝুলনা । এসেছে বরষা, এসেছে নবীন বরষা, গগন ভরিয়া এসেছে ভুবন-ভরসা— দুলিছে পবনে সনসন বনবীথিক, গীতময় তরুলতিকা । শতেক যুগের কবিদলে মিলি আকাশে ধ্বনিয়া তুলিছে মত্তমদির বাতাসে শতেক যুগের গীতিকা— শত-শত-গীত-মুখরিত বনবীথিক । জোড়াসাকে ১৭ বৈশাখ ১৩০৪