পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কল্পনা । এমন সময়ে অরুণধূসর পথে তরুণ পথিক দেখা দিল রাজরথে । সোনার মুকুটে পড়েছে উষার আলো, মুকুতার মালা গলায় সেজেছে ভালো । শুধালে| কাতরে ‘সে কোথায়, সে কোথায় ? ব্যগ্রচরণে অামারি দুয়ারে নামি— শরমে মরিয়৷ বলিতে নারিস্থ হয়, ‘নবীন পথিক, সে যে আমি, সেই অামি ।’ গোধূলিবেলায় তখনো জালে নি দীপ, পরিতেছিলাম কপালে সোনার টিপ— কনকমুকুর হাতে লয়ে বাতায়নে বধিতেছিলাম কবরী অপেন-মনে । হেনকালে এল সন্ধ্যাধুসর পথে করুণনয়ন তরুণ পথিক রথে । ফেনায় ঘর্মে আকুল অশ্বগুলি বসনে ভূষণে ভরিয়া গিয়াছে ধূলি । শুধালো কাতরে ‘সে কোথায়, সে কোথায় ।” ক্লান্ত চরণে অামারি দুয়ারে নামি— শরমে মরিয়া বলিতে নারিতু হায়, ‘শ্রাস্ত পথিক, সে যে আমি, সেই অামি ? ফাগুন যামিনী, প্রদীপ জলিছে ঘরে, দখিন বাতাস মরিছে বুকের পরে । সোনার খাচায় ঘুমায় মুখর। সারী, দুয়ার-সমুখে ঘুমায়ে পড়েছে দ্বারী । ধূপের ধোয়ায় ধূসর বাসরগেহ, অগুরুগন্ধে আকুল সকল দেহ, ময়ুরকষ্ঠ পরেছি কঁাচলখানি দূর্বাশু্যামল আঁচল বক্ষে টানি, `్ళ లిసె