পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী সুখ মুখ করে দ্বারে দ্বারে মোরে কত দিকে কত খোজালে । তুমি যে আমার কত আপনার এবার সে কথা বোঝালে । করুণ তোমার কোন পথ দিয়ে কোথা নিয়ে যায় কণহারে । সহসা দেথিতু নয়ন মেলিয়ে এনেছ তোমারি তুয়ারে । পরিণাম ভৈরবী । বীপতাল জানি হে, যবে প্রভাত হবে, তোমার কৃপ-তরণী লইবে মোরে ভব-সাগর-কিনারে । করি না ভয়, তোমারি জয় গাহিয়া যাব চলিয়, দাড়াব আমি তব অমৃত-দুয়ারে । জানি হে, তুমি যুগে যুগে তোমার বাহু ঘেরিয়া রেখেছ মোরে তব অসীম ভুবনে— জনম মোরে দিয়েছ তুমি আলোক হতে আলোকে, জীবন হতে নিয়েছ নবজীবনে । জানি হে নাথ, পুণ্যপাপে হৃদয় মোর সতত শয়ান আছে তব নয়ান-সমুখে— আমার হাতে তোমার হাত রয়েছে দিন-রজনী সকল পথে-বিপথে সুখে-আমুথে । জানি তে জানি, জীবন মম বিফল কভু হবে না, দিবে না ফেলি বিনাশভয়পাথারে— এমন দিন আসিবে যবে করুণাভরে আপনি ফুলের মতে তুলিয়া লবে তাহারে । >\○c 。