পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ক্ষণিক এই ক্ষণিকের পাতার কুটিরে প্রদীপ-আলোকে এসে ধীরে ধীরে, এই বেতসের বঁশিতে পড়ুক তব নয়নের পরসাদ-— ক্ষমা করে যত অপরাধ । আস নাই তুমি নবফাল্গুনে ছিকু যবে তব ভরসায়, এসো এসে ভরা বরষায় । এসো গো গগনে আঁচল লুটায়ে, এসে গো সকল স্বপন ছুটায়ে, এ পরান ভরি যে গান বাজাবে সে গান তোমার করো সায় আজি জলভরা বরষায় । /. কল্যাণী বিরল তোমার ভবনখানি পুষ্পকাননমাঝে, হে কল্যাণী নিত্য আছ আপন গৃহকাজে । বাইরে তোমার আম্রশাখে স্নিগ্ধরবে কোকিল ডাকে, ঘরে শিশুর কলধ্বনি আকুল হর্ষভরে । সর্বশেষের গানটি আমার অাছে তোমার তরে | ৩২৭