পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪০৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


4. 4 y. * .* i * ..." o + لهم Y i قية لم * ' 's بمعهم * I فن একজন বালক। ঠাকুর্দী, তুমি আমাদের দলে । দ্বিতীয় বালক। না ঠাকুর্দ, সে হবে না, তুমি আমাদের দলে । ঠাকুরদাদা । না ভাই, আমি ভাগাভাগিল্প খেলায় নেই ; সে-সব হয়ে বয়ে গেছে। অামি সকল দলের মাঝখানে থাকব, কাউকে বাদ দিতে পারব না। এবার গানট ধর।— । * l " . . . . আজ ভ্রমর ভোলে মধু খেতে । উড়ে বেড়ায় আলোয় মেতে, আজ কিসের তরে নদীর চরে চখাচর্থীর মেলা ! অন্য দল আসিয়া। ঠাকুর্দা, এই বুঝি ! আমাদের তুমি ভেকে আনলে না কেন ! তোমার সঙ্গে আড়ি! জন্মের মতো আড়ি ! * * ঠাকুরদাদা। এতবড়ো দও ! নিজেরা দোষ করে আমাকে শাস্তি! আমি তোদের ডেকে বের করব না তোরা আমাকে ডেকে বাইরে টেনে আনবি! না ভাই, আজ ঝগড়া না, গান ধর – ** * ওরে যাব না আজ ঘরে রে ভাই, যাৰ ন! আজি ঘরে । , ওরে, আকাশ ভেঙে বাহিরকে আজ i নেব রে লুঠ করে । যেন জোয়ার-জলে ফেনার রাশি বাতাসে আজ ছুটছে হাসি, আজ বিন কাজে বাজিয়ে বঁাশি কাটবে সকল বেলা । প্রথম বালক। ঠাকুর্দ, ওই দেখো, ওই দেখো, সন্ন্যাসী আসছে। । দ্বিতীয় বালক। বেশ হয়েছে, বেশ হয়েছে, আমরা সন্ন্যাসীকে নিয়ে খেলব আমরা সব চেলা সাজব । । l *L তৃতীয় বালক। আমরা ওঁর সঙ্গে বেরিয়ে যাব, কোন দেশে চলে যাব কেউ খুজেও পাবে না । . . . – ঠাকুরদাদা। আরে চুপ, চুপ! । সকলে । সন্ন্যাসীঠাকুর । সন্ন্যাসীঠাকুর ! ঠাকুরদাদা। আরে, থাম থাম্। ঠাকুর রাগ করবে।