পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


88恕 রবীন্দ্র-রচনাবলী রাস্তাই বেশ ভালো করিয়া বন্ধগন্ধ করিয়া যাইতেন এবং যখন একটুমাত্র ছুটির স্ববিধ পাইতেন একবার করিয়া দেখিয়া যাইতে ছাড়িতেন না । . . . . . . . একদিন দুপুরবেলায় পুরন্দর নিজেদের দিকের ছাদের পাচিলের উপরে মই লাগাইয়া জগমোহনের অংশে লাফ দিষ পড়িল । তখন আহারের পর ননিবালা তার ঘরে শুইয়া ঘুমাইতেছিল ; দরজা খোলাই ছিল। | পুরন্দর ঘরে ঢুকিয়া নিদ্রিত ননিকে দেখিয়া বিস্ময়ে এবং রাগে গৰ্জিয়া উঠিয়া বলিল, তাই বটে ! তুই এখানে ! l জাগিয়া উঠিয়া পুরন্দরকে দেখিয়া ননির মুখ একেবারে ফ্যাকাশে হইয়া গেল। সে পলাইবে কিম্ব একটা কথা বলিবে এমন শক্তি তার রহিল না । পুরন্দর রাগে কঁাপিতে কঁাপিতে ডাকিল, ননি । এমন সময় জগমোহন পশ্চাৎ হইতে ঘরে প্রবেশ করিয়া চীৎকার করিলেন, বেরে! ! আমার ঘর থেকে বেরো ! পুরন্দর ক্রুদ্ধ বিড়ালের মতো ফুলিতে লাগিল। জগমোহন কহিলেন, যদি না যাও আমি পুলিস ডাকিব । f পুরন্দর একবার ননির দিকে অগ্নিকটাক্ষ ফেলিয়া চলিয়া গেল। ননি মূৰ্ছিত হইয়। পড়িল । জগমোহন বুঝিলেন ব্যাপারটা কী । তিনি শচীশকে ডাকিয়া প্রশ্ন করিয়া বুঝিলেন, শচীশ জানিত পুরন্দরই ননিকে নষ্ট করিয়াছে ; পাছে তিনি রাগ করিয়া গোলমাল করেন এইজন্য তাকে কিছু বলে নাই। শচীশ মনে জানিত, কলিকাতা শহরে আর-কোথাও পুরন্দরের উৎপাত হইতে ননির নিস্তার নাই, একমাত্র জ্যাঠার বাড়িতে সে কখনো পারংপক্ষে পদার্পণ করিবে না । ননি একটা ভয়ের হাওয়ায় কয়দিন যেন বঁাশপাতার মতে কঁাপিতে লাগিল । তার পরে একটি মৃত সস্তান প্রসব করিম। পুরন্দর একদিন লাথি মারিয়া ননিকে অধরাত্রে বাড়ি হইতে বাহির করিয়া দিয়াছিল। তার পরে অনেক খোজ করিয়া তাহাকে পায় নাই। এমন সময়ে জ্যাঠার বাড়িতে তাহাকে দেখিয়া ঈর্ষার আগুনে তার পা হইতে মাথা পর্যস্ত জলিতে লাগিল। তার মনে হইল, একে তো শচীশ নিজের ভোগের জন্য ননিকে তার হাত হইতে ছাড়াইয়া লইয়াছে, তার পরে পুরন্দরকেই বিশেষভাবে অপমান করিবার জন্য তাহাকে একেবারে তার বাড়ির পাশেই রাথিয়াছে। এ তো কোনোমতেই সহ করিবার নয়।