পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ননি তার হাত ধরিয়া বলিল, বাবা, তুমি আজ আমাকে আশীৰ্বাদ করে । মা, আমি স্পষ্টই দেখিতেছি বুড়ে বয়সে তুমি এই নাস্তিককে আস্তিক করিয়া তুলিবে। আমি আশীর্বাদে সিকি-পয়সা বিশ্বাস করি না, কিন্তু তোমার ওই মুখখানি । দেখিলে আমার আশীৰ্বাদ করিতে ইচ্ছা করে। বলিয়া চিবুক ধরিয়া ননির মুখটি তুলিয়া কিছুক্ষণ নীরবে তার দিকে চাহিয়া রছিলেন ; ননির দুই চকু দিয়া অবিরল জল গড়াইয়া পড়িতে লাগিল । সন্ধ্যার সময় ভবতোষের বাড়ি লোক ছুটিয়া গিয়া জগমোহনকে ডাকিয়া আনিল । তিনি আসিয়া দেখিলেন, বিছানার উপর ননির দেহ পড়িয়া আছে ; তিনি যে কাপড়গুলি দিয়াছিলেন সেইগুলি পর, হাতে একখানি চিঠি, শিয়রের কাছে শচীশ দাড়াইয়া। জগমোহন চিঠি খুলিয়া পড়িয়া দেখিলেন : বাবা, পারিলাম না, আমাকে মাপ করে । তোমার কথা ভাবিয়া এতদিন আমি প্রাণপণে চেষ্টা করিযাছি, কিন্তু তাকে যে আজও ভুলিতে পারি নাই। তোমার শ্ৰীচরণে শতকোটি প্রণাম । —পাপিষ্ঠ ননিবাল