পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মূল্যপ্রাপ্তি অবদানশতক অভ্রানে শীতের রাতে নিষ্ঠুর শিশিরঘাতে পদ্মগুলি গিয়াছে মরিয়া— সুদাস মালীর ঘরে কাননের সরোবরে একটি ফুটেছে কী করিয়া । তুলি লয়ে বেচিবারে গেল সে প্রাসাদদ্বারে মাগিল রাজার দরশন— 5 হেনকালে হেরি ফুল আনন্দে পুলকাকুল & পথিক কহিল এক জন, অকালের পদ্ম তব অামি এটি কিনি লব, কত মূল্য লইবে ইহার ? বুদ্ধ ভগবান আজ এসেছেন পুরমাঝ তার পায়ে দিব উপহার।’ মালী কহে, 'এক মাষা স্বর্ণ পাব মনে আশা ? পথিক চাহিল তাহ দিতে— হেনকালে সমারোহে বহু পূজা অৰ্ঘ্য বহে । নৃপতি বাহিরে আচম্বিতে । রাজেন্দ্র প্রসেনজিৎ উচ্চারি মঙ্গলগীত চলেছেন বুদ্ধদরশনে— হেরি অকালের ফুল শুধালেন, “কত মূল ? কিনি দিব প্রভুর চরণে । মালী কহে, হে রাজন স্বর্ণমাষা দিয়ে পণ & কিনিছেন এই মহাশয়।’ দশ মাষ দিব আমি’ কহিলা ধরণী:স্বামী ‘বিশ মাষ দিব পান্থ কয় । দোহে কহে ‘দেহো দেহো, হার নাহি মানে কেহ— মূল্য বেড়ে ওঠে ক্রমাগত । 8to