পাতা:রমা-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

श्डौिग्न धृष्ठ ब्लब నాతి রমেশ। জ্যাঠাইমা ! জ্যাঠাইমা। হারে আমিই। বলি চিনতে পারিস ত ? বলিতে বলিতে তিনি সম্মুখে আসিয়া দাড়াইলেন । তাহার ব্যস পঞ্চাশের কম নয়, কিন্তু কিছুতেই চল্লিশের বেশি বলিয়া মনে হয় না। মাথার চুলগুলি ছোট করিয়া ছাট, দুই এক গাছি কুঞ্চিত হইয়া কপোলের উপর পড়িয়াছে। একদিন যে রূপের খ্যাতি এ অঞ্চলে প্রসিদ্ধ ছিল, আজিও সেই অনিন্দা-সৌন্দর্য্য ঠাহার নিটোল পরিপূর্ণ দেহটিকে বর্জন করিয়া দূরে যাইতে পারে নাই দেখিয়া আজও মনে হয় তাহার সকল অবয়ব যেন শিল্পীর সাধনীর ধন রমেশ । একদিন যে ছেলেকে তুমি মানুষ করেছিলে, আর একদিন বড় হয়ে ফিরে এসে সে-ই তোমাকে চিনতে পারবে না এই কি তোমার রমেশের কাছে আশা কর জ্যাঠাইমা ? - জ্যাঠাইমা। না, সে আশঙ্কা করিনি রমেশ । তবুও ত তোরই মুখ থেকে না শুনে পারি নে বাবা, জ্যাঠাইমাকে তোর মনে আছে। রমেশ। মনে আছে মা, খুব বড় করেই তোমাকে মনে আছে। কিন্তু যা পারতাম নিজেই করতাম, তুমি কেন আবার এ বাড়ীতে এলে ? জ্যাঠাইম' । তুই তো আমাকে ডেকে আনিস্নি বাবা, যে, তোর কাছে তার কৈফিয়ৎ দেব । রমেশ। ডেকে আনৃত্ব কি মা, মা বলে যে তোমার কোলেই সকলের আগে ছুটে গিয়েছিলাম। কিন্তু বাড়ী নেই বলে তো তুমি দেখা কর নি জ্যাঠাইমা ?