পাতা:রাজমোহনের স্ত্রী.djvu/৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজমোহনের স্ত্রী २७ প্রতিবেশীরা কি আবার মকদ্দমা বাধাইতে ছাড়িবে ? হ্যা, তারপর? মাধব পড়িতে লাগিল— “নিতান্ত দুঃখের সহিত জানাইতেছি যে, অদ্য আছির সাহায্যে হুজুরের খুড়ীমাতা সদর আমীনের আদালতে হুজুরের নামে এই মৰ্ম্মে এক মকদ্দমা দায়ের করিয়াছেন যে, তাহার স্বামীর উইল জাল এবং তিনি ওয়াশীলাং সহ তাহার সম্পত্তি ফিরিয়া পাইবার দাবি করেন।" খুড়ীমা ! বিহবল মাপবের হাত হইতে চিঠিখান পড়িয়া গেল । খুড়ীম ! হায় ভগবান ! আমার সমস্ত সম্পত্তি ফিরাইয়া চান ! আমি জাল করিয়াছি । হতভাগীকে লাথি মারিয়া বাড়ি হইতে দূর করিয়া দিব । মাধব কয়েক মুহূৰ্ত্ত দাড়াইয়া দাড়াইয়া কি ভাবিল এবং দাড়াইয়া দাড়াইয়া রাগে ফুলিতে লাগিল, শেষে নিজেকে কিঞ্চিং শান্ত করিয়া সে চিঠিখান কুড়াইয়া লইয়া পড়িতে লাগিল । "র্তাহাকে এইরূপ করিবার পরামর্শ কে দিয়াছে, প্রত্যক্ষভাবে অবগত নহি ; অধীন অনুসন্ধানের ক্রটি করে নাই । কারণ, কেহ যে ইহার পিছনে আছে সে বিষয়ে সন্দেহ থাকিতে পারে না, এবং সে একজনের নামও শুনিয়াছে। এই কার্য্যের সঙ্গে মহদাশয়েরা সব যুক্ত আছেন।” মাধব ভাবিল, পরামর্শদাতা ? কাহারা হইতে পারে ? সে অল্পমান করিবার চেষ্টা করিতে লাগিল । প্রথমে মনে হইল একজন প্রতিবেশী জমিদারের কথা । তারপর আর একজনের কথা মনে হইল, কিন্তু কোনও নামটাই সম্ভব বলিয়া বোধ হইল না । মাধব পড়িতে লাগিল— “কিন্তু হুজুরের ভয় পাইবার কোনই কারণ নাই। আমি জানি উইল জাল নহে এবং যতোধৰ্ম্মস্ততোজয় । কিন্তু তবুও সাবধান হইতে হইবে। জজ-কোটের অমুক বাবুকে ও অমুক উকিলকে ওকালতনাম দিতে হইবে এবং প্রয়োজন হইলে সদর আদালত হইতেও একজনকে নিযুক্ত করা প্রয়োজন । উভয় পক্ষের সওয়ালজবাবের দিন এবং শেষ