পাতা:রাজমোহনের স্ত্রী.djvu/৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


V)\う রাজমোহনের স্ত্রী পর লাফাষ্টয়া ঘরে পড়িল । তাহাদের দেহ বৃষ্টিজলে আর্দ্র, কদ্দমাক্ত এবং তাহাদের ভয়াবহ রক্তচক্ষর অন্তরাল হইতে দেন আগুনের হল্কা বাহির হক্টতেছিল । একাদশ পরিচ্ছেদ চোরের ওপর বাটপাড়ি আগস্থকদের একজন বলিল, আরে চোয়াড়, নিজের পরিবারকে খুন করবি নাকি ? সে নিজে ঘে সাধু উদ্দেশ্য লইয়া আসে নাই, তাহা তাহার চেহারাতেই প্রকট হুইতেছিল ; তাতার হাতের ছোরাগানিও একবার বালকিয়া উঠিল । রাজমোহন ও গজ্জন করিয়া আগন্তুকদের দিকে ধাবিত হইল, প্রশ্ন করিল, কে তোর ? তাহার হাতের ছুরি দ্রুত আবর্তিত হইতে লাগিল – আমার ঘরে ডাকাতি । ব্যঙ্গের হাসি হাসিয়া আগন্তুকদের একজন উত্তর দিল, আস্তে, আস্তে ; গোলমছু করলে তোমার ঘরের লোকেরাই জেগে উঠবে। ডাকাত নয় দোস্ত, একটু নিরীক্ষণ ক’রে দেখ, আমাদের চিনতে পারবে । তারপর মাতঙ্গিনীর দিকে চাহিয়৷ তাই কে লক্ষ্য করিয়া বলিল, ওগো বাছা, একবার আলোটা এদিকে নিয়ে এস তো, দেপা মাক তোমার স্বামী তার বন্ধুদের মুখ মনে রাখতে পারে কি না ! কিন্তু মাতঙ্গিনীর তখন সম্পূর্ণ জ্ঞান লুপ্ত না হইলেও সে মুহমানের মত পড়িয়া ছিল, তাহার জীবনের উপর অতর্কিত আক্রমণ এবং এই অপ্রত্যাশিত বাধা দুইই তাহাকে বিমূঢ় করিয়া ফেলিয়াছিল। . রাজমোহন বলিল, শত্রু হও, মিত্র হও, আমার বাড়ি থেকে বেরিয়ে