পাতা:রাজমোহনের স্ত্রী.djvu/৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজমোহনের স্ত্রী しア\○ শিল্পীর প্রতিভা অথবা খোদাইকরের কলা-কৌশল যথার্থ কি প্রকাশ করিতে চাহিতেছে সে বিষয়ে সম্পূর্ণ অনভিজ্ঞ । এই কক্ষে একটি জানালার ঠিক পাশে একটি রমণী উপবেশন করিয়া ছিলেন–র্তাহার বয়স আটাশের কাছাকাছি হইবে। র্তাহার মুখ এবং গড়ন এখনও সুন্দর বলা যায়। তাহাকে হ্যামাঙ্গী বলিতে হইবে ; তাহার চক্ষুদ্বয় আয়ত ও ভ্রমরকৃষ্ণ, মুদু অথচ হাস্তোজ্জল, একটা জ্যোতি সে দুটিতে জলজল করিতেছিল। ইহা ছাড়া এই রমণীর আর কিছু বিশেষ লক্ষ্য করিবার মত ছিল না, কিন্তু মোটের উপর তাহার দেহে এমন একটা মাধুর্য্যের বিকাশ দেখা যাইতেছিল, যাহা তাহার সহজাত, এক মুহূৰ্ত্তের জন্যও এই মাধুর্য্য তাহার অঙ্গ ছাড়িয় যায় নাই। র্তাহার সুডৌল দেহখানিকে বেষ্টন করিয়া একটি পরিষ্কার শাড়ি শোভা পাইতেছিল, কিন্তু মহিলাটির মস্তকে কোনও আবরণ ছিল না। সদ্যমানসিক্ত উজ্জ্বল কুঞ্চিত কেশদাম আলুলায়িত হইয়া তাহার পৃষ্ঠদেশে ছড়াইয়া পড়িয়াছিল, চিরুনির সাহায্যে তাহ সংস্কৃত হয় নাই, বিশৃঙ্খল বলিয়াই যেন অধিকতর মনোহারী বোধ হইতেছিল ; সচরাচর যে রকম ভারী ভারী গহনা আমাদের চোখে পড়ে, তাহা অপেক্ষা হালকা সুবর্ণ অলঙ্কারে তাহার কান, গল, বুক, বাহু ও প্রকোষ্ঠ শোভিত ছিল । যে কারণেই হউক, তাহার নাসিকারন্ধ ও গণ্ডদেশে নথের স্বক্ষ এবং হালকা বুক্তটি শোভা পাইতেছিল না, কিন্তু পায়ের যথাস্থানে থাকিয়া মলগুলি রুমুঝুনু করিতেছিল। জানালার চৌকাঠে মাহুষের চুলের কয়েকটি গুচ্ছ ঝুলিতেছিল –রমণীর অঙ্গুলিগুলি ইহাদের সাহায্যে কিশোরী বালিকাগণের কাম্য বিনুনির গোছানিৰ্ম্মাণে ব্যস্ত ছিল। দশ বছরের একটি বালিকা তাহার নিকটে উপবিষ্ট ছিল। তাহার অপরূপ সুন্দর মুখশ্ৰীতে বয়স্ক রমণীটির মুখের আদল খুজিয়া পাওয়া দুষ্কর নয়। বালিক যেরূপ ব্যাকুলভাবে তাহার মায়ের শিল্পনিৰ্ম্মাণকাৰ্য্য দেখিতেছিল তাহাতে বোধ হয় যে, তাহারই উন্মত্ত কেশপাশকে বন্ধনদশায় দেখিবার জন্যই তাহার মাতার এই মধুর পরিশ্রম।