পাতা:রাধারাণী-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૧૭ मृछनैौ রজনী বলিল, “আর একবার বসুন। আমি অমরনাথ বাৰুর দ্বারা একবার অনুরোধ করাইৰ । তাহাকে ডাকিতেছি ।” অমরনাথের সঙ্গে আর একবার সাক্ষাৎ আমারও ইচ্ছা । আমি আবার বসিলাম । রজনী অমরনাথকে ডাকিল । অমরনাথ আসিলে, আমি রজনীকে বলিলাম, “অমরনাথ বাবু এ বিষয়ে যদি অনুরোধ করিতে চাহেন, তবে সকল কথা কি তোমার সাক্ষাতে খুলিয়া বলিতে পরিবেন ? আপনার প্রশংসা আপনি দাড়াইয়া শুনিও না ।” রজনী সরিয়া গেল । চতুর্থ পরিচ্ছেদ লবঙ্গলতার কথা আমি অমরনাথকে জিজ্ঞাসা করিলাম, “তুমি কি রজনীকে বিবাহ করিবে ?” অ । করিব—স্থির । - আমি। এখনও স্থির ? রজনীর বিষয় ত রজনী আমাকে দিতেছে। অ । আমি রজনীকে বিবাহ করিব—বিযয় বিবাহ করিব না । আমি । বিষয়ের জন্যই ত রজনীকে বিবাহ করিতে চাহিয়াছিলে ? অ । স্ত্রীলোকের মন এমনই কদৰ্য্য। 娜 আমি । আমাদের উপর এত অভক্তি কত দিন ? অ । অভক্তি নাই—তাহা হইলে বিবাহ করিতে চাহিতাম না । আমি । কিন্তু বান্থিয়া বাছিয়া অন্ধ কস্তাতে এত অনুরাগ কেন ? তাই বিষয়ের কথা বলিতেছিলাম । অম। তুমি বৃদ্ধতে এত অনুরক্ত কেন ? বিষয়ের জন্য কি ? : আমি। কাহারও সাক্ষাতে তাহার স্বামীকে বুড়া বলিতে নাই। আমার সঙ্গে রাগারাগি কেন ? তুমি কি মুখরা স্ত্রীলোকের মুথকে ভয় কর না ? ( কিন্তু রাগারগি আমার আস্তরিক বাসনা । ) - অমরনাথ বলিল, “ভয় করি বই কি ? রাগের কথা কিছু বলি নাই । তুমি যেমন মিত্রজাকে ভালবাস, আমিও রজনীকে তেমনি ভালবাসি।”